ঢাকা, শুক্রবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

মাস্ক-চকলেট নিয়ে মানুষের দুয়ারে পুলিশ, চালু করলো বিট স্কুল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ২১, ২০২০
মাস্ক-চকলেট নিয়ে মানুষের দুয়ারে পুলিশ, চালু করলো বিট স্কুল

চট্টগ্রাম: করোনা নিয়ে মানুষকে সচেতন করতে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি)। লিফলেট বিতরণের পাশাপাশি বিট পুলিশিংকে করোনা নিয়ে মানুষকে সচেতন করতে কাজে লাগাতে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।

 

সিএমপি কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীরের নির্দেশে সাধারণ মানুষের মাঝে মাস্ক বিতরণ, শিশুদের চকোলেট বিতরণসহ নানা কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।  

শনিবার ( ২১ নভেম্বর) সিএমপির ১৬ থানার মোট ৯৫টি বিট এলাকায় এসব কর্মসূচি পালন করা হয়।  

শনিবার বিকেলে কাজীর দেউড়ি এলাকায় মাস্ক, চকলেট নিয়ে মানুষের ঘরে ঘরে যায় কোতোয়ালী থানা পুলিশের সদস্যরা। এসময় এ এলাকায় থাকা ভ্রাম্যমাণ দোকান ও অবৈধভাবে পার্কিং করা ভ্যানও জব্দ করা হয়।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বাংলানিউজকে বলেন, বিট পুলিশিংকে মানুষের মাঝে পরিচিত করতেই আমাদের এই আয়োজন। অনেকেই থানায় আসতে ভয় পায়, সেই ভয় কাটাতেই আমাদের এখানে আসা। কোতোয়ালী থানার নয়টি বিটে একযোগে এসব কর্মসূচি পালন করা হয়।  

এসময় সিএমপির অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) পলাশ কান্তি নাথ, সহকারী কমিশনার (কোতোয়ালী জোন) নোবেল চাকমা, বিট কর্মকর্তা ইকবাল হোসেন ভূইয়াসহ পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


পাঁচলাইশ থানা

পাঁচলাইশ থানার ছয়টি বিটে একযোগে পালন করা হয়েছে নানা কর্মসূচি। ৩৬ নম্বর শুলকবহর ও বাদুরতলা বিটের উদ্যোগে পাঁচলাইশ আবাসিক এলাকায় আয়োজন করা হয় নারীর প্রতি সহিংসতা, মাদক ও কিশোরগ্যাং প্রতিরোধে স্থানীয়দের সঙ্গে মতবিনিময় সভা।  

এ মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সিএমপির উপ-কমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক। মতবিনিময় সভায় পাঁচলাইশ থানার ওসি আবুল কাশেম ভুঁইয়াসহ পুলিশ কর্মকর্তা, বিট অফিসার ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।  

সিএমপির উপ-কমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক তার বক্তব্যে বলেন, দেশে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ থাকুক আমরা কেউ চাইনা। এ জন্য আপনাদের ভূমিকা রাখতে হবে। বাবা-মাকে তার সন্তানের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। যেকোনো অপরাধের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। আমাদের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করতে হবে।  

তিনি বলেন, আপনারা যদি মাদকের সঙ্গে আপোষ করেন, তাহলে দেখবেন আপনার সন্তানও মাদকের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছে। আপনাকে সমাজের অপরাধ দমনে এগিয়ে আসতে হবে।  

এসময় করোনা থেকে বাঁচতে সবাইকে মাস্ক পড়ার অনুরোধ জানান পুলিশ কর্মকর্তা বিজয় বসাক।  

এর আগে দিনব্যাপী বিভিন্ন বিট এলাকায় সাধারণ মানুষের মাঝে মাস্ক বিতরণ, শিশুদের চকোলেট বিতরণ করেন পাঁচলাইশ থানার ওসি আবুল কাশেম ভুঁইয়া।

 

ইপিজেড থানা

ইপিজেড থানার পাঁচটি বিটে পালন করা হয় কর্মসূচি। করোনার দ্বিতীয় ধাপের প্রকোপ সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি, নাগরিকদের ব্যক্তিগত ও সামাজিক নিরাপত্তার লক্ষ্যে সকাল থেকে একযোগে মাস্ক বিতরণ, শিশুদের চকোলেট বিতরণ, কার্যকরী বিট পুলিশিং এর লক্ষ্যে সংশ্লিষ্ট বিটের ভিজিটিং কার্ড বিতরণ এবং নাগরিক তথ্য ফরম বিতরণ করা হয়।

ইপিজেড থানার ওসি উৎপল বড়ুয়া বাংলানিউজকে বলেন, কোমলমতি শিশুরা চকলেট আর মাক্স পেয়ে খুবই খুশী, তাদের আনন্দ আমাদের অনুপ্রাণিত করেছে। সাধারণ মানুষকে করোনার দ্বিতীয় ধাপের প্রকোপ সম্পর্কে বুঝিয়েছি, নাগরিকদের ব্যক্তিগত ও সামাজিক নিরাপত্তার লক্ষ্যে নাগরিক তথ্য ফরম পূরণ করতে উদ্যোগ নিয়েছি।  

এসময় ইপিজেড থানার পরিদশর্ক (তদন্ত) মোহাম্মদ হোছাইন, অপারেশন অফিসার সাজেদ কামালসহ সংশ্লিষ্ট বিট অফিসাররা উপস্থিত ছিলেন।


পতেঙ্গা থানা

পতেঙ্গা থানার পাঁচটি বিট এলাকায় সাধারণ মানুষের মাঝে মাস্ক ও শিুশুদের চকোলেট বিতরণ করা হয়। পতেঙ্গার কাটগড়, স্টিলমিল বাজার, নেভাল, মাইজপাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় এসব কর্মসূচি পালন করা হয়।  

এসব কর্মসূচিতে পতেঙ্গা থানার ওসি জোবায়ের সৈয়দ, সেকেন্ড অফিসার মনিরুল ইসলামসহ সংশ্লিষ্ট বিট অফিসাররা অংশ নেন।  

এছাড়া বাকলিয়া, চান্দগাঁও, আকবরশাহ, খুলশী থানাসহ অন্যান্য থানাগুলোতেও পালন করা হয়েছে নানা কর্মসূচি।  


পথশিশুদের পড়াতে চালু বিট স্কুল

বিট পুলিশিংয়ের কর্মসূচিতে অভিনব উদ্যোগ গ্রহণ করেছে ডবলমুরিং থানা পুলিশ। বিট এলাকার অসহায় ও পথশিশুদের পড়ালেখার জন্য চালু করা হয়েছে বিট স্কুল।  

শনিবার বিকেলে নগরের আগ্রবাদ শিশু পার্কের সামনে এ স্কুল চালু করা হয়। এখানে আগ্রবাদ এলাকার অসহায় ও পথশিশুদের পড়ালেখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এসব শিশুদের বই, খাতাসহ শিক্ষাসামগ্রীও দেওয়া হচ্ছে।  

বিট স্কুলের উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন ডবলমুরিং থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) অর্নব বড়ুয়া। এসআই অর্নব বড়ুয়া বাংলানিউজকে বলেন, আগ্রবাদ এলাকার অসহায় ও পথশিশুদের পড়ালেখার জন্য বিট স্কুল চালু  করেছি। এসব শিশুদের শিক্ষাসামগ্রীও সরবরাহ করা হবে। এসব পথশিশুরা যাতে অপরাধের পথে পা না বাড়ায় সেলক্ষ্যে আমরা কাজ করবো। তাদের মানবিক মানুষ হিসেবে গড়ে তুলবো।  

এসআই অর্নব বড়ুয়া জানান, পুলিশের চালু করা এ বিট স্কুলে নগরফুল নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সহযোগিতা করছে। এ সংগঠনের সদস্যরা পাঠদান করবেন।  

বাংলাদেশ সময়: ২০০৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ২১, ২০২০ 
এসকে/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa